শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:৫৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম
লক্ষ্মীপুরে যুবলীগ নেতা হত্যা মামলায় ৫ নেতা কারাগারে রামগঞ্জে পারিবারিক বিরোধে শিক্ষিকাকে পিটিয়ে জখম জেলা আ.লীগের সম্মেলন আজ, শীর্ষ পদে লড়ছেন রামগঞ্জের দুই সিনিয়র নেতা রামগঞ্জে স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরন উদ্ভোধন প্রতিদ্বন্দ্বিতা থাকবে, প্রতিহিংসা নয়- আওয়ামিলীগের প্রস্তুতি সভায় সিনিয়র নেতৃবৃন্ধ রামগঞ্জে ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে সভাপতি অপূর্ব সাহা, সম্পাদক অমৃত লাল রামগঞ্জে নানা আয়োজনে কমিউনিটি পুলিশিং ডে পালিত রামগঞ্জ উপজেলা পরিষদের মাসিক উন্নয়ন সমন্বয় সভা স্থগিত গাছের ডাল কাটাকে কেন্দ্র করে প্রান গেলো ভাইবোনের রামগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৫০ শয্যায় উন্নীতকরন সিত্রাং মোকাবেলায় রামগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের জরুরি সভা রিজার্ভ কমে ৩৫ বিলিয়ন ডলারের ঘরে পানির নিচ থেকে মাটি তুলে আনতে গিয়ে নিখোঁজ তরুণ লক্ষ্মীপুরে দুই হত্যা মামলায় ৬ জনের যাবজ্জীবন রামগঞ্জে শিক্ষকের উপর ছাত্রলীগ নেতার হামলা, বিচারের দাবিতে মানববন্ধন রামগঞ্জে বিদ্যালয় ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন রামগঞ্জে ইউপি সদস্যকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা ফাঁস লাগানো অবস্থায় ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার রামগঞ্জে ক্বওমী মাদরাসা ঐক্য পরিষদের উদ্যোগে ফিকহী সেমিনার রাঙামাটিতে জশনে জুলুছে মুসল্লির ঢল



মাদকের ব্যবসা করবেনা বলায় ফুল দিয়ে বরণ করলেন ওসি

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ৩ মে, ২০২১
  • ৭০২ Time View
মাদকের ব্যবসা করবেনা বলায় ফুল দিয়ে বরণ করলেন ওসি

নিজস্ব প্রতিনিধি, রামগঞ্জ কন্ঠ, লক্ষ্মীপুরঃ লক্ষ্মীপুরের রামগতিতে মাদক ব্যবসা ও সেবন না করার প্রতিশ্রুতিতে গদাধর দাস নামের এক যুবককে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়েছে।

রোববার (২ মে) দুপুরে রামগতি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সোলাইমন তাকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন।

গদাধর রামগতি পৌরসভার চরডাক্তার এলাকার কর্ণধর চন্দ্র দাসের ছেলে।

পুলিশ জানায়, মাদক ব্যবসা ও সেবনের অভিযোগে গদাধরের বিরুদ্ধে থানায় ছয়টি মামলা রয়েছে। মামলাগুলোতে তিনি জামিনে রয়েছেন। রোববার রামগতি পৌরসভার কাউন্সিলর তাপস চন্দ্র দাস, সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর গীতা রাণী দাস ও গদাধর স্ত্রীসহ থানায় আসেন। এসময় মাদক ব্যবসা থেকে সরে যাওয়ার প্রতিশ্রুতিতে গদাধরকে থানার ওসি ফুল দিয়ে বরণ করে নেন।

স্থানীয় সূত্র জানায়, গদাধর দীর্ঘদিন ধরে মাদকের সঙ্গে জড়িত। বেশ কয়েকবার তাকে জেলে যেতে হয়েছে। বর্তমানে জামিনে রয়েছেন। মাদকের সঙ্গে জড়িত থাকায় পরিবার ও আত্মীয়-স্বজনরা তাকে পছন্দ করতেন না। বিভিন্নভাবে তাকে হেনস্তার শিকার হতে হচ্ছিল। এতে শনিবার (১ মে) নিজেকে শুধরে নেবের বলে পবিত্র গীতা ছুঁয়ে প্রতিজ্ঞা করে। একই সঙ্গে, পরিবার, আত্মীয়-স্বজন, পাড়া-প্রতিবেশী ও স্থানীয় কাউন্সিলদের কাছে ক্ষমা চেয়ে মাদক থেকে দূরে যাওয়ার ব্যবস্থা করে দিতে বলেন। দুই ছেলের কাছেও গদাধর ওয়াদা করেছেন আর কখনো মাদকের সঙ্গে জড়িত হবেন না।

গদাধর দাস বলেন, মাদক আমার জীবনটা ধ্বংস করে দিয়েছে। আশপাশের মানুষগুলোও আমার থেকে দূরে থাকে। আমি আর মাদক ব্যবসা করব না। আমি সবার মাঝে ও পাশে থেকে বাঁচতে চাই।

নারী কাউন্সিলর গীতা রাণী দাস বলেন, গদাধর বুঝতে পেরেছেন মাদকের জীবন তাকে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে গেছে। কারো কাছেই তার সম্মান ছিল না। এটা বুঝতে পেরে তিনি আমাদের কাছে এসে ভালো পথে যাওয়ার ব্যবস্থা করে দিতে বলেন। পরে গণ্যমান্য ব্যক্তিসহ তাকে থানার ওসির কাছে নিয়ে যাওয়া হয়। পুলিশ কর্মকর্তা তাকে ভালো হয়ে যাওয়ার সুযোগ সৃষ্টিতে ফুল দিয়ে বরণ করে নিয়েছেন।

রামগতি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সোলাইমান বলেন, গদাধর ভালো হয়ে যাবেন বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। আর সব ভালো কাজে পুলিশ সবার সঙ্গে আছে। এজন্য ভালো পথে অনুপ্রাণিত করতে তাকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়েছে।



More News Of This Category



© All rights reserved © 2020 banglahost
Design & Developed by: ATOZ IT HOST
Tuhin