সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২:২৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
রামগঞ্জে নবাগত পুলিশ সুপারের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত জেলা পরিষদ নির্বাচনঃ রামগঞ্জে সৈকত মাহমুদ শামছুকে আ’লীগের দলীয় সমর্থন সৌদিতে কুরআন প্রতিযোগিতায় ১১১ দেশের মধ্যে তৃতীয় বাংলাদেশের তাকরিম সরকারি চাকরির আবেদনে ৩৯ মাস ছাড় রায়পুরে খালে মিললো নিখোঁজ শিশুর মরদেহ লক্ষ্মীপুরে অস্ত্র-গুলিসহ যুবক আটক রামগঞ্জে জাতীয় পার্টির মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত লক্ষ্মীপুরে জেলেদের নৌকায় জলদস্যুর হানা, কিশোরের লাশ উদ্ধার আবারো বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হচ্ছেন শাহজাহান সাংবাদিকদের টাইমলাইনে ঘুরছে ‘হাইকোর্টকে ধন্যবাদ’ রামগঞ্জে ছাত্রীদের ইভটিজিং করার অভিযোগ শিক্ষকের বিরুদ্ধে রামগঞ্জে তিন বছরের বাচ্ছাকে গলা টিপে মাটিতে পুতে রাখলেন সৎ মা উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তার কান্ড, রামগঞ্জে সুদের কারবার ধামাচাপা দিতে ব্যবসায়ীকে ফাঁসানোর চেষ্টা লক্ষ্মীপুরে ৭০ বছরের বৃদ্ধাকে ধর্ষণের অভিযোগ, রক্তাক্ত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি রামগঞ্জে ট্রাফিক পুলিশের বিশেষ অভিযান অর্ধশতাধিক মোটরসাইকেল আটক লক্ষ্মীপুরে বিএনপির প্রচার সম্পাদক এ্যানির বাসায় হামলা, আহত ৪ লক্ষ্মীপুর আদালতের রায়, রামগঞ্জে মারপিটের মামলার রায়ে জহির জেল হাজতে রামগঞ্জে বঙ্গবন্ধুর ৪৭ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা লোহাগাড়ায় পানিতে ডুবে দু` শিশুর মৃত্যু রামগঞ্জে সিএনজি-মোটরসাইকেল মুখোমুখি সংঘর্ষ, স্কুল ছাত্র নিহত



রামগঞ্জে ঝুঁকিপূর্ন বাঁশের সাঁকো দিয়ে মুসুল্লি এবং শিক্ষার্থীদের পারাপার

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, ১২ আগস্ট, ২০২২
  • ১১৯ Time View
ঝুঁকিপূর্ন বাঁশের সাঁকো দিয়ে মুসুল্লি এবং শিক্ষার্থীদের পারাপার

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ- লক্ষীপুরের রামগঞ্জ পৌর আঙ্গারপাড়া,পশ্চিম টামটা গ্রামের মাঝখানে ওয়াবদা খালের উপর দিয়ে প্রতিদিন কয়েক শ’ মানুষ ঝুঁকিপূর্ণ এই বাঁশের সাঁকো দিয়ে চলাচল করতে হয় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে।
মসজিদের মুসুল্লি, স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের প্রতিদিনই দুর্ভোগ পোহাতে হয়।
ঝড়-বৃষ্টিতে বাঁশের সাঁকো দিয়ে পারাপার সম্পূর্ণ বিপজ্জনক হয়ে পড়ে। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে বাঁশের সাঁকো দিয়ে প্রতিনিয়ত যাতায়াত করছেন দুই গ্রামের মানুষ।

স্থানীয় মসজিদের ইমাম, খতিব ও স্থানীয় লোকজন জানান, এই সাঁকোটি দিয়ে প্রায় শত শত পরিবার যাতায়াত করে থাকে। প্রায় ১৫-২০ বছর যাবৎ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মসজিদের মুসুল্লি, স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীসহ নানা শ্রেণীর মানুষ এই সাঁকোটি ব্যবহার করে আসছেন। সাঁকোটি ৪০-৫০ ফুট দৈর্ঘ্য। আশা করি, শীঘ্রই এখানে একটি ব্রিজ নির্মাণ করা হবে। এলাকাবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি পূরণ না হওয়ায় সবচেয়ে বেশি দুর্ভোগ পোহাচ্ছে এই দুই গ্রামের শিক্ষার্থীরা।

৮০ বছর বয়সের এক বৃদ্ধ সাঁকো পার হওয়ার সময় বলেন, ‘আমাদের এই ভোগান্তি কেউ দেখতে আসেন না। এই ভোগান্তি কবে শেষ হবে জানিনা। কতবার কত লোক এসে মাপজোক দেয়। কিন্তু কোনো কাজ হয় না বাবা।



More News Of This Category



© All rights reserved © 2020 banglahost
Design & Developed by: ATOZ IT HOST
Tuhin